cool hit counter
সর্বশেষ প্রকাশিত

প্রাকৃতিক ওষুধ বেল

4468_1252520346_4
খাদিজাতুল কোবরা
(ফার্মাসিস্ট, ইউ.এস.টি.সি)

বেল সুস্বাদু ও উচ্চমানের পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ একটি ফল। এতে প্রচুর পরিমাণ শ্বেতসার, ক্যারোটিন, ভিটামিন-বি কমপ্লেক্স, ক্যালসিয়াম ও আয়রন রয়েছে।

বেলের প্রতি ১০০ গ্রামে ৩১ গ্রাম শর্করা, ২ গ্রাম প্রোটিন, ১৪০ কিলোক্যালরি পাওয়া যায়। এ ছাড়া বেল থায়ামিন, রাইবোফ্লাভিন, ভিটামিন-সি, অক্সালিক এসিড, ম্যালিক এসিড, সাইট্রিক এসিড এবং ঘনীভূত ট্যানিক এসিডের ভালো উৎস।

বিশেষ উপকারিতাসমূহঃ
>বেলের ল্যাক্সেটিভ গুণ কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে এবং আমাশয় রোগে খুব কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। ফলটি হজমে খুবই উপকারী।
>এটা অন্ত্রের কৃমিসহ অন্যান্য জীবাণু ধ্বংস করে, যা হজমের সমস্যা দূর করে, ডায়রিয়া এবং আমাশয় প্রতিরোধ করে।
>বেল পাকস্থলির আলসার, পাইলস রোগে উপকারী। এটি শক্তিবর্ধক হিসেবে কাজ করে।
>তা ছাড়া বেল ন্যাচারাল ডাই ইউরেটিক আছে, তাই ইডিমা বা শরীরে পানিজমা রোগ প্রতিরোধ করে।
>বেল বেটাক্যারোটিনের ভালো উৎস, যা থেকে ভিটামিন-এ তৈরি হয় এবং দৃষ্টিশক্তি ঠিক রাখে। >বেলপাতার রস মধুর সঙ্গে মিশিয়ে পান করলে চোখের ছানি ও জ্বালা উপশম হয়।
>এ ছাড়া ভিটামিন-এ মিউকাস মেমব্রেনের গঠন এবং চামড়ার ঔজ্জ্বল্য বৃদ্ধি করে।
>বেলের শাঁস ত্বককে সূর্যরশ্মির ক্ষতিকর প্রভাব থেকে রক্ষা করে এবং ত্বকের স্বাভাবিক রং বজায় রাখে।
>তা ছাড়া বেলের থায়ামিন ও রাইবোফ্লাভিন হার্ট এবং লিভার ভালো রাখে।
>বেল থেকে প্রাপ্ত বেটা ক্যারোটিন রঞ্জক মানবদেহের টিউমার কোষের বৃদ্ধি রোধ করে। বিশেষ করে মহিলারা নিয়মিতভাবে বেল খেলে বা বেলের শরবত খেলে ব্রেস্ট ক্যান্সার ও ইউটেরাস ক্যান্সারের ঝুঁকি কমবে।
>বেল প্রজেস্টেরন হরমোনের লেভেল বাড়িয়ে মহিলাদের ইনফার্টিলিটির ঝুঁকি কমায়।
>তা ছাড়া প্রসব-পরবর্তী ডিপ্রেশন কমাতেও ফলটি খুবই কার্যকরী।
>বেলে ভিটামিন-সি থাকে, যা স্কার্ভি প্রতিরোধ করে। ভিটামিন-সি হলো শক্তিশালী প্রাকৃতিক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা মানবদেহের বিভিন্ন সংক্রমণ রোধ করে।
>বেল শ্বাস-প্রশ্বাসের গতি বৃদ্ধি করে এবং একিউট ব্রঙ্কাইটিসে কাজ করে। বেলপাতার রস ঠাণ্ডা ও ক্রনিক কফে উপকারী।
>বেল পাতার রস জয়েন্টের ব্যথা উপশম করে।
>বেল পাতার রস মধু, গোলমরিচের গুঁড়া মিশিয়ে খেলে জন্ডিস নিরাময় হয়।
>৫০ গ্রাম বেল কুসুম গরম পানিতে চিনির সঙ্গে মিশিয়ে খেলে রক্ত পরিষ্কার হয়।
>তা ছাড়া বেলগাছের ছাল ও ডালপালায় এক ধরনের গাম থাকে, যা ডায়াবেটিস রোগের জটিলতা কমাতে ভূমিকা রাখে।

(বিঃদ্রঃ থাইরয়েড রোগী এবং গর্ভবতী মহিলাদের বেল খাওয়া যতটা সম্ভব পরিহার করা ভালো।)

Check Also

যে কারণে ১১ বার সহবাস করা উচিত

১১ বার যৌনমিলন খুশি রাখবে নব বিবাহিতদের। সাইকোথেরাপিস্ট এম গ্যারি নিউম্যানের গবেষনায় উঠে এসেছে এমনটাই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *